Happy Home & Healthcare Prokashoni

গ্যাস্ট্রিক আলসার

আইভি খান ওয়াহিদ || 2021-04-17 02:29:05

গ্যাসট্রিক আলসার রোগটির সাথে আমরা সবাই কমবেশি পরিচিতি। ডাক্তারি ভাষায় এটাকে পেপটিক আলসার ডিজিজ কিংবা গ্যাস্ট্রিক আলসার ডিজিজ করা হয়। তবে সাধারণ মানুষের কাছে এই রোগটি গ্যাস্ট্রিকের ব্যথা, গ্যাসের ব্যথা, পেটের আলসার, খাদ্যনালীর ঘা ইত্যাদি নামে পরিচিত। ডাক্তারের কাছে এসে রোগীরা সাধারণত এই নামেই সমস্যা উপস্থাপন করে। অগোছালো জীবন-যাপন, অনিয়মিত খাবার গ্রহণ, খাবার বাছাইয়ে অসতর্কতা ও অজ্ঞতা এ রোগের পিছনে বড় কারণ।

গ্যাস্ট্রিক আলসার রোগের লক্ষণ

  • বুক ও পেটের উপরের অংশে ব্যথা ( পাকস্থলীর আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যথা কমে যায়, কিন্তু অন্ত্রের আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যথা সাধারণত বাড়ে ),
  • বুক জ্বালাপোড়া করা,
  • টক বা তিক্ত স্বাদের ঢেঁকুর তোলা,
  • মাত্রাতিরিক্ত হেঁচকি ওঠা,
  • বুকের পেছনের অংশে বা মেরুদন্ডে ব্যথা,
  • পেটের উপরের অংশে গরম অনুভূত যাওয়া,
  • ক্ষুধামন্দা,
  • বমিবমিভাব ও বমি হওয়া।
  • আলসার মারাত্মক আকার ধারণ করলে রোগীর বমি হতে পারে। এ সময় বমির সাথে রক্ত বের হওয়াও অস্বাভাবিক নয়। এই পর্যায়ে অতিসত্বর চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিত।
  • খাবারে অরুচি থাকাও আলসারের আরেকটি লক্ষণ। মনে হবে যেনো পেট একেবারে ভরা। খাবার না খাওয়ার কারণে রক্তস্বল্পতা, গা ম্যাজম্যাজ করা, অল্প কাজে ক্লান্ত বোধ করা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে। এর সাথে পেট ফাঁপা অনুভূত হবে। ঘনঘন বায়ু ত্যাগের সমস্যাও থাকতে পারে।
  • এছাড়া আলসারের কারণে পেটের ভিতর রক্তক্ষরণ হতে পারে। তবে সেটা একেবারে মারাত্মক পর্যায়ে হয়। এইসময় পেটের ভিতর রক্তক্ষণের কারণে পায়খানা আঠালো এবং কালচে রঙের হতে পারে। এই সমস্ত লক্ষণগুলোতে অতিদ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন।

গ্যাস্ট্রিক আলসার রোগের লক্ষণ

  • বুক ও পেটের উপরের অংশে ব্যথা ( পাকস্থলীর আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যথা কমে যায়, কিন্তু অন্ত্রের আলসারের ক্ষেত্রে খাবার খেলে এ ব্যথা সাধারণত বাড়ে ),
  • বুক জ্বালাপোড়া করা,
  • টক বা তিক্ত স্বাদের ঢেঁকুর তোলা,
  • মাত্রাতিরিক্ত হেঁচকি ওঠা,
  • বুকের পেছনের অংশে বা মেরুদন্ডে ব্যথা,
  • পেটের উপরের অংশে গরম অনুভূত যাওয়া,
  • ক্ষুধামন্দা,
  • বমিবমিভাব ও বমি হওয়া।
  • আলসার মারাত্মক আকার ধারণ করলে রোগীর বমি হতে পারে। এ সময় বমির সাথে রক্ত বের হওয়াও অস্বাভাবিক নয়। এই পর্যায়ে অতিসত্বর চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা উচিত।
  • খাবারে অরুচি থাকাও আলসারের আরেকটি লক্ষণ। মনে হবে যেনো পেট একেবারে ভরা। খাবার না খাওয়ার কারণে রক্তস্বল্পতা, গা ম্যাজম্যাজ করা, অল্প কাজে ক্লান্ত বোধ করা ইত্যাদি সমস্যা দেখা দিতে পারে। এর সাথে পেট ফাঁপা অনুভূত হবে। ঘনঘন বায়ু ত্যাগের সমস্যাও থাকতে পারে।
  • এছাড়া আলসারের কারণে পেটের ভিতর রক্তক্ষরণ হতে পারে। তবে সেটা একেবারে মারাত্মক পর্যায়ে হয়। এইসময় পেটের ভিতর রক্তক্ষণের কারণে পায়খানা আঠালো এবং কালচে রঙের হতে পারে। এই সমস্ত লক্ষণগুলোতে অতিদ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন।

Designed & Developed by TechSolutions BD